মোবাইল দিয়ে কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করা যায়


মোবাইল দিয়ে কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করা যায়

মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে কিভাবে আয় করা যায় সেটি জানতে আমরা অনেকেই আগ্রহী। বর্তমান সময়ে অনেকেই মোবাইল দিয়ে আয়ের চেষ্টা করে, কিন্তু সঠিক তত্ত্ব না জানার কারণে বেশির ভাগ মানুষেই ব্যর্থ্য হয়।

অনেকেই আবার মোবাইল দিয়ে আয়ের চেষ্টা করে প্রতারনার শিকার হয়। বর্তমানে অনলাইনে আয় বিষয়টির ট্রেন্ডিং চলছে, আর এই সুযোগ ঠিকে কাজে লাগিয়ে অনেক ট্রেনিং সেন্টার গড়ে উঠেছে। এই সমস্থ ট্রেনিং সেন্টার গুলোর মধ্যে কিছু কিছু ট্রেনিং সেন্টার সঠিক ভাবে কাজ না শিখিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

মোবাইল দিয়ে কি কি উপায়ে অনলাইন থেকে আয় করা যায়।

বর্তমান সময়ে সবাই অনলাইন থেকে আয় করতে চায়। টাকার অভাবে অনেকেই কম্পিউটার কিনতে পারে না। তাই মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে কিভাবে আয় করা যায় সেই সমস্থ উপায় খুঁজে থাকে।

বর্তমান সময়ে আমরা যেসমস্থ স্মার্টফোন ব্যবহার করি সেগুলোর শক্তি কম্পিউটার থেকে কোন অংশে কম নয়। প্রথম যখন মানুষ চাঁদে অবতরন করেছিল সেই সময়ে যেই কম্পিউটার ব্যবহার করেছিল সেটির থেকে বর্তমানের স্মার্টফোনের শক্তি হাজার গুণে বেশি। তাই সঠিক জ্ঞান জানা থাকলে মোবাইল দিয়েও আমরা অনলাইন থেকে আয় করতে পারব।

মোবাইল দিয়ে কি কি কাজ করা যায়।

কম্পিউটার দিয়ে আমরা যে সমস্থ কাজ করি তার প্রায় সকল কাজেই মোবাইল দিয়ে করা যায়, কিন্তু মোবাইল দিয়ে কাজ করার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা আছে। যেহেতু মোবাইলের আকৃতি কম্পিউটার থেকে ছোট তাই কিছু কিছু কাজ করতে সময় একটু বেশি লাগে। যেমন টাইপ করার ক্ষেত্রে একটু অসুবিধা হয়, কিন্তু কিছু দিন চেষ্টা করলে অবস্ত্য হয়ে যায়।

যেসমস্থ কাজ করে মোবাইল দিয়ে প্রকৃত অর্থেই আয় করা যায় সেই সমস্থ কাজ গুলো হচ্ছে, ইউটিউবিং, ব্লগিং, এ্যফিলিয়েট মার্কেটিং, সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং ইত্যাদি কাজ মোবাইল দিয়ে করে প্যাসিভ ইনকাম করা যায়।

এছাড়াও ফ্রিলেন্সিং মার্কেট প্লেসেও নানা রকম কাজ করা যায় যেমন, এসইও, ভয়েজ ওভার, কনটেন্ট রাইটিং, সোশাল মিডিয়া ম্যানেজার ইত্যাদি কাজ মার্কেট প্লেসে করা যায়। অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সহজে কাজ পাওয়া যায় ফাইবারে। ফ্রিলেন্সিং করার জন্য আমি যে কাজগুলোর কথা বলেছি তার সকল কাজেই ফাইবারে পাওয়া যায়।

মোবাইল দিয়ে ইউটুউব থেকে আয়

বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে আয়ের জন্য ইউটুউব হচ্ছে একটি জনপ্রিয় মাধ্যম। অনেক মানুষেই ইউটুউব থেকে হাজার হাজার টাকা আয় করছে। ইউটিউব থেকে আয়ের জন্য নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হয়।

ভিডিও রেকর্ড ও আপলোড করার জন্য বর্তমানে একটি স্মার্টফোনেই যথেষ্ট। এখনকার মোবাইল ফোনের ক্যামেরা অনেক উন্নত মানের হয়ে থাকে, যার ফলে তা দিয়ে এসডি কোয়ালিটির ভিডিও রেকর্ড করা যায় এবং ভিডিও এডিটিং এই মোবাইলের মাধ্যমেই করা যায়। তাই বলা যায় মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে আয়ের জন্য ইউটুউব একটি ভাল মাধ্যম।

মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করে আয়

আমরা সারাদিন ফেইসবোকে নানা রকমের পোষ্ট করে থাকি এবং সেই পোষ্ট গুলো হাজার হাজার মানুষ পড়ে ও লাইক, কমেন্ট করে। ফেইসবোকে আমরা যতই পোস্ট করিনা কেন এর জন্য ফেইসবোক আমাদের কোন টাকা দেয় না।

কিন্তু আমরা যদি এই পোস্টগুলি একটু সুন্দর করে কোন অয়েব-সাইটে করি তাহলে সেখান থেকে ডলার আয় করা সম্ভব। আপনি চাইলে ‘ডমেইন’ হস্টিং কিনেও ব্লগিং করতে পারেন অথবা ফ্রিতেও করতে পারেন। গুগুলের একটি ফ্রি ফ্লাটফর্ম রয়েছে যার নাম হচ্ছে bloger সেখানে আপনি ফ্রিতে একটি অয়েব-সাইট খুলতে পারেন এবং এতে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আয় করতে পারেন।

মোবাইল দিয়ে আয়ের কথা বলে প্রথারণা

বর্তমান সময়ে অনেকেই সাধারণ মানুষকে মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে আয়ের কথা বলে নানা প্রতারণার ফাদে ফেলে অর্থাৎ হাদিয়ে নিচ্ছে। এরকম অনেক এ্যাপস আছে যেগুলোর মধ্যে শুধু ক্লিক করে আয় করা যায় এমন কথা বলে, টাকা দিয়ে এসব অ্যাপসে প্রথম একাউন্ট করতে হয় এবং প্রথম প্রথম কিছু মানুষকে পেমেন্ট করে, কিছুদিন পরে আর পেমেন্ট করে না এবং মানুষের টাকা নিয়ে উদাও হয়ে যায়।

তাই আমাদের একটি কথা মনে রাখতে হবে, খুব সহজে অনলাইন থেকে কোন অবস্থাতেই আয় করা সম্ভব না। অনলাইন থেকে আয় করার জন্য আপনাকে যেকোন একটি কাজ শিখতে হবে এবং সেই কাজে পারদর্শি হতে হবে।

আরও পড়ুন

মোবাইল দিয়ে কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করা যায় মোবাইল দিয়ে কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করা যায় Reviewed by Techbidda on মঙ্গলবার, মার্চ ০২, ২০২১ Rating: 5

কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.